ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপ থেকেই করা যাবে এসএমএস

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক বার্তা আদান-প্রদানের জন্য তাদের মূল অ্যাপ থেকে কিছুদিন আগেই মেসেঞ্জার আলাদা করে দিয়েছে। এবার তারা সেই মেসেঞ্জার অ্যাপে কয়েকটি সুবিধা যোগ করার বিষয়টি পরীক্ষা করছে বলে জানা গেছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।
বর্তমানে ফেসবুক তাদের মেসেঞ্জার অ্যাপে মোবাইল ফোনে বার্তা পাঠানোর বিষয়টি পরীক্ষা করছে। এছাড়া একটি অ্যাপের মাধ্যমে একাধিক ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মেসেজ আদান-প্রদানের উপায় সংযোজনের বিষয়টিও পরীক্ষা করছে ফেসবুক।
বিশ্লেষকরা মনে করছেন এ দুটি ফিচার ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপে সংযুক্ত করা হলে তা ব্যবহারকারীদের যেমন সুবিধা দেবে তেমন ফেসবুকও মেসেঞ্জার অ্যাপকে জনপ্রিয় করার সুবিধা পাবে। এতে মেসেঞ্জারটি ‘অল-ইন-ওয়ান’ মেসেঞ্জার সার্ভিসের মতো মর্যাদা পেতে পারে।
জানা গেছে, মেসেঞ্জারে এসএমএস মেসেজগুলোকে গোলাপি রঙে চিহ্নিত করা হবে। এতে অন্যরা সহজে মেসেজগুলো আলাদা করতে পারবে।
অ্যান্ড্রয়েডপুলিশ এক রিপোর্টে জানিয়েছে, কিছু অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী টেক্সট মেসেজ ব্যবহার করার জন্য মেসেঞ্জারে বাড়তি সুবিধা চাইছেন। আর এ কারণেই তাদের এ সুবিধা দেওয়ার চেষ্টা করছে ব্যবহারকারী।
এসএমএস এখনও শুধু মোবাইল ফোনেরই বিষয়। এখানে ফেসবুকের মেসেঞ্জারের সঙ্গে তা রাখার কোনো উপায় নেই। কিন্তু এ সুবিধা যোগ হলে তাতে ব্যবহারকারীরা উপকৃত হবে বলে ধারণা ফেসবুকের।
নতুন এ সুবিধা যোগ হলেও ফেসবুক মেসেঞ্জারে তেমন বড় পরিবর্তন হবে না। এ বিষয়ে ফেসবুকের একজন পরিচালক জুলিয়েন কডরনিউ বলেন, মেসেঞ্জার এক শতাংশ সম্পূর্ণ। প্রতিষ্ঠানটির ইচ্ছে রয়েছে মেসেঞ্জার ব্যবহার করে উইচ্যাট নামে চীনা জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপের অনুকরণে কথা বলা, ট্যাক্সি ডাকা, সিনেমার টিকিট কাটা কিংবা অনলাইনে কেনাকাটার ব্যবস্থা করা।

সূত্র: কালের কন্ঠ